বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ১২:৫৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ঝিনাইদহে ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক সাংবাদিক লাঞ্ছিত ও বেঁধে রাখার হুমকি।। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে নিন্দা জানিয়ে অসংখ্য সাংবাদিক। কোরবানীর কাঁচা চামড়ার মুল্য নির্ধারণ, বানিজ্য মন্ত্রনালয়কে নিয়ে চলছে রং তামাশা শিক্ষক হত্যা ও জুতার মালা এখন বাঙালি জাতিকে বহন করতে হচ্ছে পদ্মা সেতু হয়ে টুঙ্গিপাড়া গেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা শ্রদ্ধা মন খুলে দে,ও তুই হেলা করিস না, গোপালগঞ্জে যাবরে ভাই মোটরসাইকেল নিয়া ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডে মান্নান হোসেন শাহীন সভাপতি, শেখ মোঃ জহিরুল ইসলাম অপু সাধারণ সম্পাদক ৩২ নং ওয়ার্ডে মোঃ বেলাল আহমেদ সভাপতি, মোঃ আবুল বাশার সাধারণ সম্পাদক ৩১ নং ওয়ার্ডে শহীদ আলী সভাপতি, সাজেদুল হক খান রনি সাধারণ সম্পাদক গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে শিগগিরই আর একটি গণঅভ্যুত্থান হবে: আমান উল্লাহ আমান

২৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে আলোচনায় মোক্তাদির হাসান নুন্না

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম রবিবার, ৫ জুন, ২০২২
  • ৪৬১৬ দেখা হয়েছে

মোঃ ইব্রাহিম হোসেনঃ ঢাকা মহানগর উত্তর মোহাম্মদপুর থানার ২৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে আলোচনায় মোক্তাদির হাসান নুন্না। মোক্তাদির হাসান নুন্নার পিতা মরহুম মোহাম্মদ হোসেন, স্বাধীনতা মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ধানমন্ডি ৩২ নম্বর সড়কের বাড়িতে সিকিউরিটি গার্ড হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

ঢাকা মহানগর উত্তর মোহাম্মদপুর থানার ২৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে রাজনীতিতে উৎসবমূখর পরিবেশ বিরাজ করছে। আগামী ১২ জুন অনুষ্ঠিত হবে মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগ ও মোহাম্মদপুর থানার অন্তর্গত সকল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক এই সম্মেলন। ২৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে কারা আসছেন তা নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে চলছে ব্যাপক আলোচনা ইতিমধ্যে চায়ের কাপে ঝড় উঠেছে। কে হচ্ছেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক? এ দিকে সমর্থন পেতে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সম্পর্ক বাড়াতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন পদ প্রত্যাশীরা। ফলে সম্মেলনকে ঘিরে নতুন করে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ব্যাপক প্রাণচাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে।

২৯ নং ওয়ার্ডের তৃণমূল পর্যায়ে সাধারণ জনগণ ও দলীয় কর্মীদের অত্যন্ত জনপ্রিয় একজন ব্যক্তি মোক্তাদির হাসান নুন্না। একেবারে নির্লোভ, সাদামাটা, কর্মীবান্ধব এবং সমাজের সকল শ্রেণী পেশা মানুষের সাথে রয়েছে তাঁর নিবীড় সম্পর্ক। জনগনের যে কোন প্রয়োজনে, সুবিধা- অসুবিধায় সব-সময় নেতা-কর্মীদেরকে সাথে নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে তিনি।স্থানীয় আওয়ামী পরিবারের ত্যাগী নেতা-কর্মীরা মনে করে, মোক্তাদির হাসান নুন্না ভাই ২৯ নং ওয়ার্ডের অত্যন্ত জনপ্রিয় একজন মানুষ। সে সাধারণ সম্পাদক হলে এলাকায় সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও মাদকমুক্ত করতে পারবে।

স্কুল জীবন থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে নিজেকে একজন জনপ্রিয় কর্মী বান্ধব ছাত্রলীগের আদর্শবান কর্মী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে মোক্তাদির হাসান নুন্না। মোক্তাদির হাসান নুন্না সাবেক সভাপতি, নির্মাণ শ্রমিক লীগ, মোহাম্মদপুর থানা, ঢাকা মহানগর ১৯৯০-১৯৯৫ ইং। সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, ৫ নং ইউনিট আওয়ামী লীগ, ৪২ নং ওয়ার্ড, মোহাম্মদপুর থানা, ১৯৯৬-২০০৬ইং। সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ৫নং ইউনিট আওয়ামী লীগ, ৪২নং ওয়ার্ড, মোহাম্মদপুর থানা, ২০০৭-২০১৬ইং। সাবেক শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, (কোয়াব) ২০১৬-১৭ইং সাবেক ৪২ বর্তমান ২৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, মোহাম্মদপুর থানা, ঢাকা মহানগর উত্তর ।

মোক্তাদির হাসান নুন্না এর রাজনৈতিক পথচলা শুরু ১৯৯০ সালে স্বৈরাচার এরশাদ সরকার পতনের রাজপথে আন্দোলনে সক্রিয় অংশগ্রহণ, ১৯৯৪-১৯৯৬ পর্যন্ত স্বৈরাচার খালেদা জিয়ার পতনের লক্ষ্যে হরতাল, অবরোধ, ঘেরাও কর্মসূচী, অসহযোগ আন্দোলনে রাজপথে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ এবং ২০০১ এর পরবর্তী সময়ে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামে অগ্রনী ভূমিকা পালন করেছেন।

করোনার ভয়াল থাবায় আঘাতগ্রস্থ পুরো পৃথিবীর। এই মহামারী করোনা ছোবল বসিয়েছে বাংলাদেশেও। করোনায় স্থবির জনজীবন, কাজ হারিয়ে অনেকেই অনাহারে দিন কাটাচ্ছে, খাবারের খোঁজে ছুটছে দিকবেদিক। এমন সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে গত ২৬ মার্চ ২০২০ থেকে অদ্যবধি দুঃস্থ ও অসহায় গরিব মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী, নগদ অর্থ চিকিৎসা সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছে মোক্তাদির হাসান নুন্না।

মোক্তাদির হাসান নুন্নার, স্ত্রী, ১-মেয়ে ও ১-ছেলে, ১ মাত্র ছেলেঃ হ্নদয় হাসান ডোনা, সাবেক সফল যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদপুর থানা ছাত্রলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তর। বর্তমানে ছেলে ও ছেলের স্ত্রী ফ্রান্সের স্থায়ী বাসিন্দা, প্যারিসে কর্মরত। মেয়ে ও জামাতা বৃটিশ স্থায়ী নাগরিক, লন্ডনে কর্মরত এবং স্ত্রী (গৃহিণী)।

স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মোহাম্মদপুর থানার ২৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সাধারণ সম্পাদক পদে মোক্তাদির হাসান নুন্না এর কোনো বিকল্প নাই, আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব দেবার মতো জনবল, পারিবারিক ঐতিহ্য, সামাজিক পরিচিতি, আর্থিক স্বচ্ছলতা, রাজনৈতিক দূরদর্শীতা, আদর্শিক-পরীক্ষিত নেতৃত্ব, পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি ইমেজ ও গ্রহণ যোগ্যতা ইত্যাদি যেসব গুণের প্রয়োজন তার সবগুলো মোক্তাদির হাসান নুন্নার মধ্যে বিদ্যামান রয়েছে।

এব্যাপারে ২৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী মোক্তাদির হাসান নুন্নার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমি ২৯ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক হলে, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, মাদকমুক্ত, পরিছন্ন, ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলবো। আমার রাজনীতি কোন কিছু পাওয়ার জন্য নয়, জনগনের সেবা করার জন্য। আমি সাধারণ মানুষের উন্নয়নের জন্য রাজনীতি করি। আমি মানবতার জননী শেখ হাসিনর কর্মী, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। টেন্ডারবাজী ও চাঁদাবাজীসহ যে কোন অপকর্মের সাথে জড়িত কাউকে প্রশ্রয় দেই না, ভবিষ্যতেও দেব না।

তিনি আরো বলেন, ২০০১ সালে জামায়াত-বিএনপি ক্ষমতায় এসে এবং তাদের ক্ষমতায় থাকাকালীন শেষ পর্যন্ত পুলিশের নির্যাতনের শিকার হই এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার গঠনের পর জামাত-বিএনপি’র আগুন সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদসহ অনৈতিক আন্দোলনের বিরুদ্ধে নেতা-কর্মী ও জনগনকে সঙ্গে নিয়ে রাজপথে সক্রিয় ভূমিকা পালন করি। কোন কিছুতেই দাবিয়ে রাখতে পারেনি বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার কর্মসূচী বাস্তবায়নের পথ থেকে। এছাড়াও বিভিন্ন জাতীয়, রাজনৈতিক দলীয় কর্মসূচী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন ও সামাজিক কর্মকান্ডে নিজের অবস্থান থেকে সবসময় সাধারন মানুষের পাশে দাঁড়িছে, আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার ভিশন- ২০২১ এ মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ এ বিশ্ব দরবারে উন্নত, সুখী ও সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়তে নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষকে নিয়ে কাজ করব ইনশাল্লাহ।

শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর...

Dairy and pen distribution

themesba-lates1749691102