June 17, 2024, 9:18 pm
শিরোনামঃ
ত্যাগের মহিমায় রাজধানীতে মহল্লায় মহল্লায় চলছে পশু কোরবানি রাজধানীতে মহল্লায় মহল্লায় চলছে পশু কোরবানি পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অ্যাডভোকেট শেখ জামাল হোসেন মুন্না পবিত্র ঈদ-উল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আলহাজ্ব মোঃ রেজাউল করিম সেন্টমার্টিন পরিদর্শনে পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৎপর থাকার নির্দেশ:  বিজিবি মহাপরিচালক   ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনারকে হত্যার আগে ২৫ বার বৈঠক করেন শাহীন বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন এবং পুরস্কার বিতরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোঃ জাফর ইকবাল (বাবুল) পবিত্র ঈদ-উল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোঃ সাইফ ইসলাম শুভ পবিত্র ঈদ-উল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোঃ ইব্রাহিম খান তুষার

সন্ত্রাস চাঁদাবাজ , মাদক ও দখল মুক্ত রাজনীতি চাই: রবিউল আলম

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : Saturday, April 16, 2022
  • 182 Time View
শ্লোগানে আছে, বাস্তবে নাই। ১৯৮১ সালে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের দায়ীত্বে থাকা নেতা খুরশিদ আলম সাথে এদিক ওদিক নেতাদের বাড়ীতে, গোপন স্থানে। অথবা বার্তা নিয়ে হাজির হতাম কোনো এক অফিসে। বিষয় একটাই, কিছু টাকা দিন। রাজনৈতিক কর্মসুচি বিনে টাকায় হয় না। চিকা মারো, পোস্টার করো। জনসভা ও গোপন সভা, সবকিছুতেই অর্থের প্রয়োজন। একার পক্ষে রাজনীতির অর্থ যোগানো সম্ভব নয় বলেই হাত পাত্তে হয়। দেওয়ার মনমানসিকতা ছিলো বলেই মজিব আদর্শ আজ পুর্ণাঙ্গ। রাজনীতির আগে অর্থনীতির যোগানের কথা ভেবে যারা নীতি আদর্শের কথা বলেন, আদর্শের রাজনীতি তাদের জন্য। তবে ছিঁড়াখেতার রাজনীতি এখন আর লক্ষ্য অর্জন হয় না। নিজের মনে পোষণ করে অফিস পাহারা দিতে দিতে ইহকাল ত্যাগ করতে হয়। বিরোধী দলের রাজনীতির চরিত্রের সাথে মিলাতে পারছি না। যেখানেই হাত পেতেছি, হাতের সাথে পেট ভরে দিয়েছে। মনের আনন্দে রাজনীতির জন্য দিন আর রাত ছিলো না। বিএনপির একটি ইফতার পার্টির ভিডিও লাইফ দেখে পুরোনো ব্যাথা চমকিয়ে উঠলো। একটি ওয়ার্ডে দুইটা গরু জবাই, আনুসংগীক উল্লেখ করা হলো না। টাকা আসে কোত্থেকে ? সরকারী দল করে এখনো ইফতার করাতে পারলাম না। নগর আগের মত একশত টাকা দেয় না, কাউন্সিলর’রা নিজেদের ছাড়া বুজেন না। এমপি মন্ত্রীর সময় হয় না। সবাই মনে করে চাঁদাবাজির উপর নির্ভর রাজনীতি, মুক্ত করে বিপদ কার গারে নিবেন। সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, মাদক মুক্ত সমাজ ও রাষ্ট্র চাই, শ্লোগানের মাঝেই রাখতে হবে। যারা পারবেন না , তাদের কে রাজনৈতিক হওয়ার প্রয়োজন নাই। সরকারী দলের অভিজ্ঞতা ছাড়া হিসেব মিলাতে পারেন না বলেই কিছু দলছুট নেতা আমদানি করতে হয়। প্রতিটি সম্মেলনে তাই হয়েছে। এইবারে ও কি তাই হবে ? আমদানি রপ্তানির সম্মেলন হলে কথা নাই। না হয় কিছু গোপন কথা হতেই পারে মজিব আদর্শের রাজনীতি বিস্তারের জন্য, সততার রাজনীতি কে বাচিয়ে রাখার জন্য, রাজনৈতিক কর্মসুচির অর্থের জন্য। এই দেশটা আমাদের, দেশের মানুষ আমরাই। নিজেরা ও নিজেদের দলকে চাঁদাবাজ মুক্ত করতে না পারলে শ্লোগান হবে অর্থহীন। জয় বাংলা।
লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব ও রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব রবিউল আলম।
শেয়ার করুন
More News Of This Category

Dairy and pen distribution

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি ডটকম
themesba-lates1749691102