June 14, 2024, 10:37 pm
শিরোনামঃ
পবিত্র ঈদ-উল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোঃ ইব্রাহিম খান তুষার অনেক বড় বড় জায়গা থেকে তদন্ত বাধাগ্রস্ত করতে তদবির করা হচ্ছে: এমপি আনারের মেয়ে সাইদুল করিম মিন্টুর মোবাইলে মেসেজ ‘আনার শেষ, মনোনয়ন কনফার্ম’! লোহার খাঁচার ভেতরে থাকাটা অপমানজনক, হয়রানি করা হচ্ছে: ড. ইউনূস রাশিয়ার হয়ে যুদ্ধ করতে গিয়ে রুশ সেনাবাহিনীতে নিযুক্ত ২ ভারতীয় নিহত ঈদ-উল-আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেনঃ এনাম-ই-খোদা জুলু ১১ জুন শুধু জননেত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস নয়, গণতন্ত্রেরও মুক্তি দিবস : সাজেদুল ইসলাম নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মনির মিয়াকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন সাইদুল ইসলাম বাদল বিরল আধ্যাত্মিক ব্যক্তিত্ব আশেকে রসূল ‘আল্লামা শায়খ মানযূর আহমাদ (রাঃ)- প্রফেসর ডা. মুহাম্মাদ আমীরুল ইসলাম আল আহমাদী উয়েসী (পি.এইচ. ডি) ‘পুলিশ সদস্য কেন আরেক পুলিশ সদস্যকে গুলি করেছে জানতে তদন্ত হচ্ছে’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সহজ ম্যাচ কঠিন করে বাংলাদেশের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : Saturday, June 8, 2024
  • 17 Time View

ঝুমুর আক্তার, স্টাফ রিপোর্টারঃ  শ্রীলঙ্কার দেয়া মামুলি টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে তিন উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে বাংলাদেশ। কিন্তু চতুর্থ উইকেটে লিটন ও হৃদয় দুর্দান্ত জুটি গড়ে জয়ের ভিত গড়ে দেন। এরপর এ দুজনের বিদায়ের পর দ্রুতই উইকেট হারিয়ে হারের শঙ্কা জাগে টাইগারদের। শেষ পর্যন্ত অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

শনিবার (৮ জুন) ডালাসের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়। আগে ব্যাট করে শ্রীলঙ্কা মুস্তাফিজ ও রিশাদের বোলিং তোপে পড়ে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৪ রান করতে সক্ষম হয়। জবাবে বাংলাদেশ ৬ বল ও ২ উইকেট হাতে রেখে জয় তুলে নেয়।

শেষ ১২ বলে প্রয়োজন ছিল ১১ রান। স্ট্রাইকে তখন অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ। প্রথম বলকে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচকে নিজেদের দিকে টেনে নেন মিস্টার সাইলেন্ট কিলার। পরের বলে এক রান নিয়ে সাকিবকে স্ট্রাইক দেন। এক বল ডট দিয়ে পরের বলে এক রান নিয়ে মাহমুদউল্লাহকে স্টাইক দেন। পঞ্চম বল থেকে ডট আদায় করে নেন দাশুন শানাকা। ষষ্ঠ বলে মাহমুদউল্লাহকে আউটের জন্য রিভিউ নেয় শ্রীলঙ্কা। উল্টো রিভিউ থেকে সেই বলকে ওয়াইড ঘোষণা করেন থার্ড আম্পায়ার। যার ফলে ৭ বলে বাংলাদেশের প্রয়োজন পড়ে ২ রান। ১৯তম ওভারের শেষ বলে ২ রান নিয়ে এক ওভার হাতে থাকতেই বাংলাদেশের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন মাহমুদউল্লাহ ও তানজিম সাকিব।

লঙ্কানদের দেয়া টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ২৮ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। বরাবরের মতোই ব্যর্থ হন তামিম, সৌম্য ও অধিনায়ক শান্ত। এই তিনজনের সম্মিলিত রান মাত্র ১০।

চতুর্থ উইকেটে তাওহিদ হৃদয় ও লিটন দাস মিলে শুরুর ধাক্কা সামাল দিয়ে গড়েন গুরুত্বপূর্ণ ৬৩ রানের জুটি। দলীয় ৯১ রানে হৃদয় ২০ বলে ৪ ছক্কা ও ১ চারে ৪০ রান করে বিদায় নেন। দলীয় শতরানের আগেই বিদায় নেন লিটন দাসও। তিনি ৩৮ বলে ৩৬ রান সংগ্রহ করেন।

এরপরই লঙ্কানার আবার চেপে ধরে বাংলাদেশকে। ১০০ রানে ৫ উইকেট থেকে ১১৩ রানে ৮ উইকেট পড়ে যায়। এতে করে হারের শঙ্কা জাগে টাইগার সমর্থকদের মনে। কিন্তু অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ ঠান্ডা মাথায় খেলে সেই শঙ্কা কাটিয়ে দলকে জয় পাইয়ে মাঠ ছাড়েন। মাহমুদউল্লাহ ১৩ বলে ১ ছক্কার সাহায্যে ১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে টসভাগ্যে জিতে শ্রীলঙ্কাকে ব্যাটিংয়ে পাঠান টাইগার অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। উদ্বোধনী জুটিতে ২১ রান সংগ্রহ করেন কুশল মেন্ডিস ও পাথুম নিশাঙ্কা। এরপর মেন্ডিসকে ফেরান তাসকিন। এরপর দলীয় অর্ধশত পূরণ করার আগে দ্বিতীয় আঘাত হানেন টাইগার পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। তিনি ফেরান কামিন্দু মেন্ডিসকে।

শ্রীলঙ্কার হয়ে সর্বোচ্চ রান করা পাথুম নিশাঙ্কাকে দলীয় ৭০ রানের সময় প্যাভিলিয়নের পথ দেখান মুস্তাফিজ। তার আগে নিশাঙ্কা ২৮ বলে ১ ছক্কা ও ৭ চারে ৪৭ রান সংগ্রহ করেন। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে শ্রীলঙ্কা। শেষ দিকে রিশাদ আক্রমণে এসে দ্রুত উইকেট তুলতে থাকেন। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৪ রান সংগ্রহ করে লঙ্কানরা।

শেয়ার করুন
More News Of This Category

Dairy and pen distribution

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি ডটকম
themesba-lates1749691102