বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
জন্মদিনে নানা শ্রেণির মানুষের ভালো বাসায় সিক্ত আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ রুস্তুম আলী জন্মদিনে শুভেচ্ছায় সিক্ত যুবলীগের নেতা মোঃ আলমগীর হোসেন ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে আগুনে পুড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু শীতার্ত মানুষের ঘরে ঘরে কম্বল পৌঁছে দিচ্ছেন ঝাল মুড়ি বিক্রেতা মোহাম্মদ জাবেদ ইসলাম পর্ব ৫৮: “যে ইতিহাসটি বলা দরকার” : এডভোকেট খোন্দকার সামসুল হক রেজা বাঙ্গালীর মাতৃভাষা আন্দোলন সংস্কৃতি রক্ষা স্বাধীকার স্বাধীনতা ও বর্তমান উন্নয়ন প্রেক্ষাপট সন্ত্রাসী সংগঠন হুজিবি প্রধানসহ গ্রেফতার ৬; বড় হামলার পরিকল্পনা ছিল, বলছে সিটিটিসি গ্যাসে ভাসছে ভোলা, কঠিন হচ্ছে তোলা কর্ণেল (অব) শওকত আলীর ৮৬তম জন্মবার্ষিকীতে আবু সাঈদ তালুকদারের বিনম্র শ্রদ্ধা মিলেমিশে এ জীবনঃ কবি মোঃ নাসির উদ্দিন দুলাল

শেখ রাসেলের জন্মদিন পালন করলো হাজারীবাগ থানা শহীদ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০
  • ২৯৯ দেখা হয়েছে

মোঃ ইব্রাহিম হোসেনঃ

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ সন্তান শহীদ শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্মদিন উপলক্ষে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজধানী হাজারীবাগ থানা শহীদ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের উদ্যোগে ১৮ অক্টোবর ২০২০ রোজ রবিবার শিশু-কিশোরদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, শেখ রাসেল স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল পুরস্কার বিতরণ এবং হাজারীবাগ থানার সাবেক দুঃসময়ের ত্যাগী ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের বিশেষ সম্মাননা ২০২০ প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

হাজারীবাগ থানা শহীদ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের সভাপতি আসলামুল হক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা ১০ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ১৪, ১৫, ১৮ নং ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর জনাবা শিরিন গাফফার, ঢাকা মহানগর-উত্তর ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি, হাজারীবাগ থানা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি এবং বর্তমানে ৩৪ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মানিত সভাপতি মোঃ বিল্লাল হোসেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, হাজারীবাগ ও মোহাম্মদপুর থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিট আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এবং আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ’সহ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট মানবতার ঘৃণ্য শত্রু-খুনিদের নির্মম বুলেটের হাত থেকে রক্ষা পাননি বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলও।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে নরপিশাচরা নিষ্ঠুরভাবে তাকেও হত্যা করেছিল। সবেমাত্র চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন তিনি। পড়তেন ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলে। বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিরা তাকে হত্যা করে বঙ্গবন্ধুর রক্তের উত্তরাধিকার নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিলেন। ইতিহাস সাক্ষ্য দেয়- তাদের সেই অপচেষ্টা শতভাগ ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়েছে।

শহীদ শেখ রাসেল আজ বাংলাদেশের শিশু-কিশোর, তরুণ, শুভবুদ্ধিবোধ সম্পন্ন মানুষদের কাছে ভালোবাসার নাম। অবহেলিত, পশ্চাৎপদ, অধিকার বঞ্চিত শিশুদের আলোকিত জীবন গড়ার প্রতীক হয়ে গ্রাম-গঞ্জ-শহর তথা বাংলাদেশের বিস্তীর্ণ জনপদ-লোকালয়ে শেখ রাসেল আজ এক মানবিক সত্ত্বায় পরিণত হয়েছেন।

মানবিক চেতনা সম্পন্ন সকল মানুষ শেখ রাসেলের মর্মান্তিক বিয়োগ বেদনাকে হৃদয়ে ধারণ করে বাংলার প্রতিটি শিশু-কিশোর তরুণের মুখে হাসি ফোটাতে আজ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

বঙ্গবন্ধু ও তার শিশুপুত্র শেখ রাসেলের হত্যায় জড়িত দণ্ডপ্রাপ্ত খুনিরা এখনও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে পলাতক আছে। দণ্ডপ্রাপ্ত এসব পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করা দাবি জানান।

শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর...

Dairy and pen distribution

themesba-lates1749691102