June 24, 2024, 8:38 pm
শিরোনামঃ
১৪ জেলায় নতুন পুলিশ সুপার আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ঢাকা মহানগর উত্তর মৎস্যজীবী লীগের শ্রদ্ধা পর্ব ১০৯: “যে ইতিহাসটি বলা দরকার” : এডভোকেট খোন্দকার সামসুল হক রেজা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মোঃ নুরে আলম সিদ্দিকী এর শুভেচ্ছা আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সাজেদুল ইসলাম এর শুভেচ্ছা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মোঃ জাফর ইকবাল (বাবুল) এর শুভেচ্ছা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রস্তুতি সভা ১৫ লাখ টাকায় ছাগল কেনা ইফাত আমার ছেলে নয়: রাজস্ব কর্মকর্তা মোঃ ওয়াকিল উদ্দিন এমপিকে ফুলের শুভেচ্ছা জানালেন রামপুরা থানা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ কাঁঠাল খাওয়ার উপকারিতা

শহীদ পার্ক মসজিদে লিটন মাস্টার এর পক্ষ থেকে ইফতার ও দোয়া মাহফিল

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : Friday, April 15, 2022
  • 209 Time View

মোঃ ইব্রাহিম হোসেনঃ পবিত্র রমজানুল মোবারক উপলক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য ও আগামী কাউন্সিলে ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী মোঃ মোকলেছুর রহমান খান (লিটন মাস্টার) তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘লিটন মাষ্টার টেইলার্স এন্ড্ ফেব্রিক্স’ এর পক্ষ থেকে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ ১৫ এপ্রিল ২০২২ রোজ শুক্রবার রাজধানী মোহাম্মদপুর শহীদ পার্ক কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে এ ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

ইফতার ও দোয়া মাহফিলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও সুস্থতা কামনা, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সহ-সভাপতি ও ঢাকা-১৩ আসনের এমপি আলহাজ্ব মোঃ সাদেক খান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি, লিটন মাস্টারের মা-বাবা, দাদা-দাদি, ভাই-বোন, চাচা-চাচি ও আত্মীয় স্বজনদের জন্য দীর্ঘায়ু ও সুস্থতা কামনা এবং দেশবাসীর জন্য বিশেষ ভাবে দোয়া করার পাশাপাশি মহামারি করোনা পরবর্তী দেশ ও জনগণের মঙ্গল কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন, মোহাম্মদপুর শহীদ পার্ক কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোঃ মোকলেছুর রহমান খান (লিটন মাস্টার) জানান, রোজাদারদের ইফতার করানো সাওয়াবের কাজ। রাসুলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি কোনো রোজাদারকে ইফতার করাবে সে ওই রোজাদারের সমপরিমাণ সওয়াব পাবে। এবং রোজাদারের সওয়াবও কমানো হবে না সেই চিন্তা থেকেই ব্যক্তিগত উদ্যোগে এই ক্ষুদ্র আয়োজন।প্রথম রোজা থেকে শুরু হয়ে ইফতারের এ আয়োজন প্রতিবছরের ন্যায় শেষ রোজা পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে।

 

 

শেয়ার করুন
More News Of This Category

Dairy and pen distribution

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি ডটকম
themesba-lates1749691102