শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বৃষ্টির দিনেও রান্না করা খাবার নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে রাজধানী মোহান্মদপুর ক্লাব সাধারণ সম্পাদক পদে সকলের পছন্দ হাফেজ মাওলানা মোঃ ইসমাইল হোসেন মানি ইজ নো প্রবল্যামের রাজনীতির জনক জিয়া, বঙ্গবন্ধু ছিলেন রাজনৈতিক কৃপণতার জনক অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে কারিগরি শিক্ষা: শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল ইভিএম পেশীশক্তিকে প্রতিরোধে সহায়ক, দিনের ভোট দিনের জন্য মুলমন্ত্র ৩৩ নং ওয়ার্ড বিএনপির ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় শেখ মোঃ জহিরুল ইসলাম অপু বিনামূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা এবং ঔষধ বিতরণের ব্যবস্হা করেছে বাংলাদেশ ডেন্টাল হেলথ সোসাইটি কেন্দ্রীয় কমিটির ৩১ নং ওয়ার্ড বিএনপির ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় সাজেদুল হক খান রনি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের মৃত্যুতে লায়ন এম এ লতিফ’র শোক স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের মৃত্যুতে নুরে আলম সিদ্দিকী হক’র শোক

মুজিব বর্ষে বাংলাদেশের কৃষিতে ডিজিটাল প্রযুক্তির (ড্রোন) ব্যবহার: নতুন দিগন্তের সূচনা

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম বুধবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২১২ দেখা হয়েছে

খাস খবর বাংলাদেশঃ বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) এর অধীনে কুমিল্লা-চাঁদপুর-ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলা সেচ এলাকা উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় জলাবদ্ধতা দূর করতে প্রথমবার ব্যবহার করা হচ্ছে ড্রোন প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে, প্রকল্প এলাকার বর্তমান অবস্থা এবং বাস্তবায়নের পরে প্রকল্প এলাকার অগ্রগতি বিবেচনা করে প্রকল্প মূল্যায়ণে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করবে।

ড্রোনের মাধ্যমে জলাবদ্ধ এলাকার পরিমাণ এবং তার কারণ চিহ্নিত করে সমস্যার টেকসই সমাধানের জন্য কাজ করছেন প্রকল্প পরিচালক, প্রকৌশলী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। এই কাজে প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদান করছে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ ট্রাস্ট সিইজিআইএস। ড্রোন থেকে পাওয়া তথ্যমতে জলাবদ্ধতার কারনে দাউদকান্দি উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের মোল্লাকান্দি, বড় ও ছোট হরিনা মৌজার প্রায় ১৫০ একর জমিতে ফসল চাষ করা সম্ভব হচ্ছে না। ফলে এই এলাকার মানুষ প্রায় ৪০০ মেট্রিক টন ধান উৎপাদন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে যার বাজার মূল্য প্রায় এক কোটি ৫০ লাখ টাকা।

এই প্রকল্প এলাকায় অনেক জায়গায় এইধরনের জলাবদ্ধতার সমস্যা আছে। মাঠ পর্যায়ে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে এসব সমস্যা সমাধান করতে এবং “এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে” মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে বিএডিসি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

তারই ধারাবাহিকতায় প্রকল্প পরিচালক, প্রকৌশলী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান গত ১৯ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখ বর্ণিত জ্বলাবদ্ধ স্থানটি সরেজমিন পরিদর্শন করেন এবং সংশ্লিষ্ট এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং জ্বলাবদ্ধতার কারনে ভোক্তভোগী প্রান্তিক কৃষকগণের সাথে মত বিনিময় করেন। প্রকল্প পরিচালক মহোদয় বলেন বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ এর মধ্যেও বাংলাদেশের কৃষিকে তথা দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ্ করতে বঙ্গবন্ধু তনয়া মাননীয় প্রধান মন্ত্রী এবং মাননীয় কৃষি মন্ত্রী মহোদয়ের বিভিন্ন সাহসী উদ্যোগ ও নির্দেশনা মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নের জন্য বিএডিসি কুমিল্লা পরিবার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে

শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর...

Dairy and pen distribution

themesba-lates1749691102