April 18, 2024, 10:51 am
শিরোনামঃ
শুধু প্রশাসন দিয়ে মাদক ও কিশোর গাং প্রতিরোধ করা সম্ভব নয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে ব্যর্থ হলে ? গুচ্ছভুক্ত ২৪ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা ভন্ড কবিরাজ বলেন তিনমাথা,জ্বীন দিয়ে ও গোখরা সাপের কামড় দিয়ে শেষ করে দিব জানা গেল কোরবানি ঈদের সম্ভাব্য তারিখ বাংলা ও বাঙ্গালীর নববর্ষঃ আঃ রহমান শাহ ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন কৃষক লীগ নেতা মোঃ হালিম খান পদ্মা সেতুতে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড জাহাজেই ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করলেন জিম্মি নাবিকরা পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছে আলহাজ্ব লায়ন মোঃ দেলোয়ার হোসেন

মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করার লক্ষ্যেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিলঃ সাদেক খান এমপি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : Monday, August 14, 2023
  • 144 Time View
Vibrant vector background

ঢাকা-১৩ আসনের উন্নয়নের রূপকার মাননীয় সংসদ সদস্য, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সহ-সভাপতি ও ঢাকা-১৩ আসনের মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গি মুক্ত সমাজ গড়ার কারিগর এবং দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৩ আসনে আবারও নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী জনপ্রিয় জননেতা আলহাজ্ব মোঃ সাদেক খান বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করার লক্ষ্যেই জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মদদে মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট স্বাধীনতার মহান স্থপতি ও সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়েছিল।

১৪ আগস্ট ২০২৩ রোজ সোমবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে খাস খবর বাংলাদেশ পত্রিকার সাথে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

আলহাজ্ব মোঃ সাদেক খান এমপি বলেন, এই দেশ যাতে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে সে জন্য ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুকে কাদের ইশারায় হত্যা করা হয়েছিল তা পরিস্কার বোঝা যায় বঙ্গবন্ধু হত্যার পর খন্দকার মোস্তাকের রাষ্ট্রপতি হওয়া আর জিয়াউর রহমানের সেনাপ্রধান পদে পদোন্নতি পাওয়ার মধ্য দিয়ে।

বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের বিভিন্ন দূতাবাসে সরকারি চাকরি দেওয়ার মধ্য দিয়ে বিষয়টি জাতির সামনে আরো পরিস্কার হয় বলে তিনি উল্লেখ করেন। যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল সেই চক্রই এখন শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে। ইতিপূর্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য ১৯ বার যড়যন্ত্র করা হয়।

২০০৪ সালে গ্রেনেড হামলার মাধ্যমে তাকে হত্যার চেষ্টা করেছিল তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট। কিন্তু আল্লাহর রহমতে শেখ হাসিনা গ্রেনেড হামলা থেকে প্রাণে বেঁচে গেছেন।

তিনি বলেন, সকল যড়যন্ত্র মোকাবেলা করে ২০০৮ সালের ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যখন সরকার গঠন করা হল এবং দেশের উন্নয়নে নানা প্রকল্প গ্রহণ করা হল ঠিক তখনই আবার যড়যন্ত্র শুরু হল। সেই যড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে ২০১৩ সালের নভেম্বর থেকে ২০১৪ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত তিন মাস সারা দেশে খালেদা জিয়ার নির্দেশে জ্বালাও-পোড়াও শুরু হয়।

বাসে পেট্রলবোমা মেরে মানুষ হত্যা করে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতাচ্যুত করার চেষ্টা করা হয় বলে আলহাজ্ব মোঃ সাদেক খান এমপি উল্লেখ করেন।

আলহাজ্ব মোঃ সাদেক খান এমপি বলেন, বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রটির জন্ম হঠাৎ করে হয়নি। এরজন্যে দীর্ঘ প্রস্তুতি নিতে হয়েছে বঙ্গবন্ধুকে। একটি অসাম্প্রদায়িক প্রগতিশীল রাষ্ট্রের জন্যে জাতির দীর্ঘ প্রস্তুতির প্রতিটি বাঁকেই নেতৃ্ত্ব দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। দীর্ঘ রাজনৈতিক প্রস্তুতি ও সাড়ে নয় মাসের সশস্ত্র যুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের জন্মের পর এই দেশটিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গড়ে তোলার সংগ্রাম শুরুর প্রারম্বেই মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে। ষড়যন্ত্রকারীরা মনে করেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে বাঙালি জাতির মন থেকে এই মহাপুরুষকে চীরতরে মুছে ফেলবে। কিন্তু এটি যে কোনোদিনই সম্ভব নয়, তা এই জাতিই আবার বুঝিয়ে দিয়েছে ষড়যন্ত্রীদের।

শেয়ার করুন
More News Of This Category

Dairy and pen distribution

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি ডটকম
themesba-lates1749691102