বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০১:২৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ঝিনাইদহে ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক সাংবাদিক লাঞ্ছিত ও বেঁধে রাখার হুমকি।। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে নিন্দা জানিয়ে অসংখ্য সাংবাদিক। কোরবানীর কাঁচা চামড়ার মুল্য নির্ধারণ, বানিজ্য মন্ত্রনালয়কে নিয়ে চলছে রং তামাশা শিক্ষক হত্যা ও জুতার মালা এখন বাঙালি জাতিকে বহন করতে হচ্ছে পদ্মা সেতু হয়ে টুঙ্গিপাড়া গেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা শ্রদ্ধা মন খুলে দে,ও তুই হেলা করিস না, গোপালগঞ্জে যাবরে ভাই মোটরসাইকেল নিয়া ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডে মান্নান হোসেন শাহীন সভাপতি, শেখ মোঃ জহিরুল ইসলাম অপু সাধারণ সম্পাদক ৩২ নং ওয়ার্ডে মোঃ বেলাল আহমেদ সভাপতি, মোঃ আবুল বাশার সাধারণ সম্পাদক ৩১ নং ওয়ার্ডে শহীদ আলী সভাপতি, সাজেদুল হক খান রনি সাধারণ সম্পাদক গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে শিগগিরই আর একটি গণঅভ্যুত্থান হবে: আমান উল্লাহ আমান

মামুনুল, সফি হুজুর হতে চায়।চায় প্রধান মন্ত্রীর সাহ্মাৎ মুর্তি কি ভাস্কর্য হবে ? নাকি আঃলীগের দালাল হওয়ার জন্য

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম রবিবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৮৯ দেখা হয়েছে

জনাব রবিউল আলমঃ  আজব এই পৃথিবীর, আজব আজব ধর্ম প্রচারে, আমরা সবাই বিপদগ্রস্ত । মানুষের মুখ এক, কথা অনেক। ভাষার পরিবর্তন হয় চোখের পলকে। হা, মামুনুল হকের কথাই বলছি। নবীজির সঃ মের ঠুটের আকৃতি মিলাতে পারেন। ( নাউজুবিল্লাহ ) বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের নাম নাকি যুক্ত করা হয়েছে ( তিনি বলেন না’ই বুঝিয়েছেন ) তা হলে কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙ্গা হলো কেনো ? ডঃ আনোয়ার হোসেন স্যার বলেছেন ধর্মান্ধদের পরাজিত করতে হবে,আপোষ চলে না। হেফাজত সঠিক ভাবে কোরআন পড়ে না। ইসলাম যা বলে হেফাজত তা বোঝে না। আমি বলি মাইরের চেয়ে বুঝানোর ঔষধ আর কিছু নাই। মামুনুল হক বলেছেন তিনি নাকি সরকারের এজেন্সির সাথে আলোচনা করেছেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সাথেও যোগাযোগ করেছেন।প্রধান মন্ত্রীর সাহ্মৎ চান। একদিনের মাইরে কতটা পরিবর্তন হয়েছেন মামুনুল হকরা। আমার ভাবতেও অভাগ লাগছে। মামুনুল হক, মাওলানা সফি হুজুর হতে চায়।প্রধান মন্ত্রীর সাথে বসতে চায়। মুর্তি কি ভাস্কর্য হবে ? নাকি আঃলীগের দালালী হবে। আমার একটু বুঝতে কষ্ট হচ্ছে। বাংলার মাটিতে পরাজিত শক্তির, আমরা অনেক রূপ দেখেছি।তারা কখনো বাংলাকে ভালোবাসতে পারবেনা,বাঙালী হতে পারবেন না, বাংলার বন্ধু হতে পারবেন না, পাকিস্তান পেআত্না প্রবেশ করেছে মনে। শাপ মেরে লেঙ্গুর রাখলে যা হয়। তাই হচ্ছে এখন রাজনীতিতে। মিস্টার মামুনুল হক, আমার রাসুলকে নিয়ে আপনি যে ব্যাংগুপ্তি করেছেন আল্লাপাক রাব্বুল আলামিন মাপ করলেই হয়। মিথ্যা দিয়ে ঘৃনাকে জয় করা যায় না। গজব আপনার অনিবার্য। আল্লা নিরাকার, নবিজী আকার হলেও আল্লাপাক তার আকার প্রকাশ করেন নাই, মানুষ তার সাথে কারো তুলনা করতে না পারেন। আপনি তার আকৃতির ব্যাঙগুপ্তি করেছেন ঠুট নিয়ে। আপনাকে বিশ্বাস করা যায় না, প্রধান মন্ত্রীর টেবিল অনেক দুরের কথা। আপনি আলোচনা আশা করেন কি করে। সরকারের কোনো দালাল যদি আপনাকে এই বুদ্ধি দিয়ে থাকে, তবে বলতে হবে আপনি এখনো বোকার রাজ্যে আছেন। তবে আপনি আমার ব্যাক্তিগত একটা ধন্যবাদ পাওনা থাকলেন, ঘুমিয়ে থাকা আঃলীগকে জাগিয় তুলার জন্য। আঃলীগারা নিজেদের মাঝে যে বিবাদে জরিয়ে পরেছিলেন। আপনি তাদেরকে ঐক্যের কাতারে এনে দিয়েছেন। বল্লার ছোপে ডিল মেরেছেন। কামর আপনাকে খেতেই হবে, যদি আল্লাপাক আপনাকে পাগল করেনাদেন। আসলে আপনি দালালী করার উপযুক্ত ও হন নাই।

লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব ও রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামলী লীগের সভাপতি জনাব রবিউল আলম।

শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর...

Dairy and pen distribution

themesba-lates1749691102