April 23, 2024, 4:07 am
শিরোনামঃ
জনমত পারমাণবিক বোমাকে পরাজিত করে,নির্বাচন সত্যকে উপজেলা নির্বাচন থেকে আওয়ামীলীগের নতুন নেতৃত্ব উঠে আসবে গরু ও মাংস আমদানীর বিতর্কে অংশ নিতে চাইছিলাম না। ধর্ম নিরপেক্ষ ভারত কে বাঁচাতে,বিজেপি বিরোধী ঐক্য চাই তাপমাত্রা কমাতে যেসব পরামর্শ দিলেন চিফ হিট অফিসার বুশরা কৃষক লীগ নেতাদের গণভবনের শাকসবজি উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্দোলনে ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি নিজেরাই মহাবিপদে আছে: ওবায়দুল কাদের শুধু প্রশাসন দিয়ে মাদক ও কিশোর গাং প্রতিরোধ করা সম্ভব নয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে ব্যর্থ হলে ? গুচ্ছভুক্ত ২৪ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে কথা বলেই টাকা পাওয়া যায়

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : Saturday, July 15, 2023
  • 89 Time View
বাঙালি জাতি কে বুঝতে হবে, টাকার উৎস কোত্থেকে এবং কেনো ? শেখ হাসিনার জন্য বাংলাদেশটা লুটতে পারছে না। কতো মুল্যে পশ্চিমারা বাংলাদেশ কে লুটতে চায় ? লুটের অংশ কারা কারা হতে চায় ? ইতিমধ্যে কিছুটা পরিস্কার হয়েছে। দেশের কী হবে,ঝালমুড়ি ওলা ও রাজনীতি করতে চায়। ক্ষমতার জন্য ইসরায়েলকে বুকে ধারন করতে পারে। বিকাশ নুর ও মেন্দি সাফাদির ছবি অনেক কথাই বলে দিয়েছে। দিনের ভোট নাকি রাতে হয়, বার বার পরাজিত হয়। তবু আলম কে হিরো বানিয়ে একাধিক জায়গায় নির্বাচন করতে হয়। টাকা কোত্থেকে আসে ? কোনো প্রশ্নের উত্তর নাই। উত্তর একে একে আদায় করে নিচ্ছে, মিডিয়া। বাংলাদেশ টাকে কৌতুকে ভরপুর করতে চায় যারা, উন্নয়ন যাদের চোক্ষুসুলের কারণ। প্রতিবেশীর ধনাঢ্য হলে মাতাব্বরি থাকে না।শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কারিশমার কাছে, ধোঁকাবাজির রাজনীতি চলছে না। হরতাল, অবরোধ, ধর্মঘটের রাজনীতি ইতিমধ্যে যবনীকা হয়েছে, বাংলাদেশের বিস্ময়কর উন্নয়নের জন্যে।পশ্চিমারা কুলকিনার পাচ্ছে না,বিএনপি জামাতের কথা এই দেশের মানুষ শুনছে না। অথই সাগরে পরলে যায় হয়, পশ্চিমাদের অবস্থা সেই রকম। আলমকে হিরো, নুরাকে বিকাশ বানিয়ে খেলতে চায়। খেলা হবে রাজনীতির মাঠে। খেলতে হচ্ছে হিরো আলমের সাথে। এরই নাম গনতন্ত্র, তবু গনতন্ত্র রক্ষার অযুহাতে দেশ ধ্বংস করার কর্মসুচি। ১৪-১৫- ২০ দফা বাদ দিয়ে এবার একদফার রফা হবে, সরকার তুই কবে যাবি ? কোথায় যাবে, তার কোনো ফয়সালা নাই। জনগনের রায়ের কোনো তোয়াক্কা করে না, নিজেদের মতামতের নামেই গনতন্ত্র চালাতে চায়। ব্যাপাড়ীদের সিদ্ধান্তের নাম নাকি গনতন্ত্র। নির্বাচনের প্রয়োজন নাই। হিরো আলম রাষ্ট্রপতি,বিকাশ নুর প্রধান মন্ত্রী,ইসরায়েল বাংলাদেশের রক্ষা কবজ হতে চায়। মোল্লা মুন্সি, হেফাজত, জামাত, ইসলামী আন্দোলনে ,সবাই ইসরায়েলের টাকার আশায় রাজনীতি করে ? শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে কথা বলেই টাকা আসে। দেশ জাতি ও শেখ হাসিনার পক্ষে কথা বলার অপরাধের শাস্তি হবে, চুলা বন্দ ও চিকিৎসা বন্দ। জ্বালমুড়ীওলা এখন রাজনীতি করবে শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে । পশ্চিমারা করাবে। বাঙালির রুচির কী পরিবর্তন ? ভাষা শিক্ষা সংস্কৃতি, ইতিহাস ঐতিহ্য রক্ষার আন্দোলনই ২০২৪ এর নির্বাচন। উন্নয়নের নৌকা, জ্বালাও পোড়াও ধানের শীর্ষ, দাঁড়ী পাল্লায় ধর্মের বীষ, রঙ্গমঞ্চের ডুগডুগি। মশালের তেল, আগেই শেষ। হাতপাখার হাওয়ায় জ্বলবে দেশ। তবু গনতন্ত্রই শেষ কথা। হায়রে বাংলাদেশ।
লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব, রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের চলতি দায়িত্ব প্রাপ্ত সভাপতি ও  খাস খবর বাংলাদেশ পত্রিকার সম্মানিত উপদেষ্টা মন্ডলী জনাব রবিউল আলম।
শেয়ার করুন
More News Of This Category

Dairy and pen distribution

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি ডটকম
themesba-lates1749691102