শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রাখা অভিযুক্ত ইকবাল হোসেন কক্সবাজার থেকে গ্রেফতার শৈলকুপায় বামগণতান্ত্রিক জোটের সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস প্রতিরোধ দিবস পালিত সব শঙ্কা উড়িয়ে বিশ্বকাপের মূলপর্বে বাংলাদেশ সাঈব ঈমাম চৌধূরী ৪ নং সলিমুললাহ রোড ইউনিট আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনার শীর্ষে কোরআন অবমাননা কারা করতে পারে? যাদের উপর নাজিল হয়েছে ধর্ম কি মানুষের জন্য ? না-কি মানুষ ধর্মের জন্য ? এই প্রশ্নে সমাধান কার কাছে ? দুর্নীতি ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে : মোস্তফা কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রাখেন ইকবাল: পুলিশ ঝিনাইদহে সাংবাদিক’কে প্রাণ নাশের চেষ্টা থানায় সাধারন ডায়েরী মানবদেহে শুকরের কিডনির সফল প্রতিস্থাপন

ভোটার উপস্থিতি করার দায়ীত্ব কি শুধু সরকারের ? না-কি সরকারকে নামানোর জন্য বিরোধী মতের ?

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম সোমবার, ১১ অক্টোবর, ২০২১
  • ২৭ দেখা হয়েছে

জনাব রবিউল আলমঃ

রাজনৈতিক ইতিহাসে বৃটিশ-পাকিস্তান এরশাদ খালেদা বিরোধী আন্দোলনে জনতার ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন জাতি দেখেছে এবং অংশগ্রহণ করেছে। জনতার ঐক্যের কাছে সকল অপশক্তির পরাজয় অনিবার্য। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেশপ্রেম ও উন্নয়ন জাতির কাছে স্বপ্নে পাওয়ার বিষয়,আমার মনে হয়। বিএনপি-জামাত সহ সরকার বিরোধী সকল অপশক্তিকে জনতা মোকাবেলা করছে স্বপ্নভঙ্গের কারণ যেনো না হয়। জনগণকে আন্দোলনে আনা দুরের কথা সরকার পরিবর্তনের জন্য ভোট কেন্দ্রে হাজির করতেও পারছেন না বিরোধী দল। কেনো জনগণ ভোটদানে মুখ ফিরিয়ে নিলো ? সরকার পরিবর্তন চায় না বলে ? শেখ হাসিনার উপর আস্থা আছে বলে ? অতিতের চেয়ে দেশের উন্নয়ন হচ্ছে বলে ? মানুষের জানমালের নিরাপত্তা পেয়েছেন বলে ? বিশ্বের এক নম্বর অর্থনৈতিক দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে দেখতে চায় বলে ? অনেক বিষয় হতে পারে। জনগণের সন্তানদেরকে আন্দোলনের নামে জীবন দিতে হয়, নেতা ও নেত্রীদের সন্তানরা লণ্ডন বসে হুমকদেয়,দেওয়ার নাম রাজনীতি হতে পারে না। পৃথিবীর কোনো দেশের সরকার জনগণকে আন্দোলনে এবং নিজের বিরুদ্ধে ভোটদানে উৎসাহিত করবেন না। জনগণ সহ্য করতে না পারলেই রাজপথ, গুপ্তপথ, ভোটদানের পথ বেছে নিবেন। বিরোধীরা যদি জনগণকে সরকারের বিরুদ্ধে সঠিক তথ্য উপস্থাপন করতে পারেন,জনগণের মনের কথা বলতে পারেন,তবেই সরকার বিরোধী আন্দোলন হবে।। প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে বিএনপি-জামাত হাজারো কর্মসুচি দিয়েছে, হরতালের নামে জ্বালাও পোড়াও ধ্বংসাত্মক অগ্নিসংযোগ গাড়ী ভাংচুর রেললাইন উপচানো ও হয়েছে।অনেক মায়ের কোল খালি করার পরেও নেতাদেরকে রাস্তায় দেখা যায় নাই। জাতি যখন বুঝতে পেরেছে, নিজেদের অধিকার বুঝে নিয়েছেন। হরতালকে প্রত্যাক্ষান করেছে। তখন আপনারা সরকারকে উল্টিয়ে দিবেন, শেখ হাসিনার সরকারের অধিনে নির্বাচন করবেন না। কখন বলে বসবেন এই সরকারের অধিনে আপনারা থাকবেনও না। আপনারা কোন দেশের সরকার চান, তাও বলছেন না। আপনাদের জন্য একটি সরকার বানিয়ে দিতে হবে ? না-কি আপনাদেরকে সরকারে বসিয়ে দিতে হবে ? জাতির কাছে পরিস্কার করুন। অতিত অভিজ্ঞতা বলে, আপনাদের সরকার একটি ফ্লাইওভার করতে পারে নাই, শেখ হাসিনার মেগাপ্রকল্প উদ্বোধন হলে আপনাদেরকে হিসেব দিতে হবে। ভয়ে কি আতংকৃত ? আপনাদের রাজনৈতিক অবস্থান কোথায় হবে ? একবার ভেবে দেখুন। শেখ হাসিনার সরকারের অধিনে নির্বাচন করবেন না, শেখ হাসিনার সরকারের কাছে নিরাপত্তার আবেদন করতে হবে জনরোষ থেকে বাচার জন্য। সেইদিন বেশী দুরে নয়। এখনি তারেক রহমানকে দেশে আসার, খালেদা জিয়ার বিদেশ যাত্রার ও সেনা নিবাসের বাড়ী ফেরতে আবেদন করেছেন, কোন সরকারের কাছে ? সবকিছু নিজেদের জন্য চাইবেন। জনগনের জন্য কি আপনাদের কাছে কিছুই চাওয়ার নাই ? জনগণ আপনাদেরকে সহ্য করতে পারবে কেনো ? আর একটা নির্বাচন প্রত্যাক্ষান করলে, অথবা প্রতিরোধ করতে না পারলে, জনগণ আপনাদেরকে কোন গুহায় নিক্ষেপ করবে, আমার ভাবতেও কষ্ট হয়।

লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব ও রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব রবিউল আলম।

শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর...

Dairy and pen distribution

themesba-lates1749691102