বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:৪৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নারী নেতৃত্ব বিশ্বকে উজ্জ্বল করেছে, ইডেন করেছে কলংকৃত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিনে নুরে আলম সিদ্দিকী হক শুভেচ্ছা রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৩ নং ওয়ার্ড কৃষক লীগের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত নদ-নদী রক্ষায় পানি লুন্ঠন ঠেকাতে হবে : বাংলাদেশ ন্যাপ লালমাটিয়া হাউজিং সোসাইটি স্কুল এন্ড কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি সৈয়দ হাসান নূর ইসলাম রাষ্টন ঝিনাইদহে সাপের কামড়ে প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু মহা মায়া দুর্গার আগমন উপলক্ষে মন্দিরে মন্দিরে হিন্দু সম্প্রদায়ের মহা প্রস্তুতি বিএনপি কতকাল আওয়ামী লীগের খেলার পুতুল হবে? রাজনীতির জন্য নিজস্ব কিছু অর্জন থাকতে হবে  ক্রিড়াঙ্গনের নিলজ্জ্বতা আবার দেখতে হলো বাঙালি জাতিকে ব্যাক্তিত্ব ছাড়া নেতৃত্ব, জনসমর্থন ছাড়া কোনো জান্তাই ইচ্ছেতন্ত্র চালাতে পারবে না মিয়ানমার

বিএনপি অসময় গর্জে উঠে, জামাত নিরবে অর্থ, শক্তি সঞ্চয় করে

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৬০ দেখা হয়েছে

আওয়ামীলীগের পাতা ফাঁদে বার বার বিএনপির অপরিপক্ক রাজনৈতিক হোচোঁট খাচ্ছে। নেতৃত্ব হচ্ছে প্রশ্নবিদ্ধ। ২০০৮ সালে আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসার একবছরের মাথায় তত্বাবধায়ক সরকার বাতিলের ঘোষণা করেন ইচ্ছেকৃত।বিএনপি-জামাতের শক্তি খয়ের পরিকল্পনায়। ফান্দে পা দিতে দেরী করেন নাই। জামাতের উপর ভর করে বিএনপি কাইটা ছিল্লা লবন লাগাইয়া সরকার বিদায়ী করার হুংকারে সব শেষ করেছেন। আন্দোলনের নামে জ্বালাও পোড়াও করে। এমন কোনো অপকর্মের পরিকল্পনা ছিলো না, যা বিএনপি করে নাই। সরকার বিদায়ী ও নির্বাচন প্রতিহত করতে না পারলেও জনগণকে বিষিয়ে তুলে ছিলেন।

২০১৪ সালের নির্বাচনের এই পদ্ধতি পুর্নাবৃত্তি করলেন ২০১৮ সালের নির্বাচনে। গুরু আবিস্কার করলেন ডক্টর কামাল হোসেনকে। ডক্টরের মেলায় জাফরুল্লাহ, রব, সফিক, রফিক,মান্না, সাকী সহ অগুনিত ব্যর্থ প্রেমিক জুগলকে বিএনপির দায়ীত্ব বুঁজিয়ে দিলেন।আবিস্কার হলো হারুনুর রশিদ, রুহিন ফারহানা,জাতীয় সংসদে কথা বলার প্রতিনিধি। ২০১৪ সালে বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলে ইতিহাস অন্যভাবে লেখা হতো। বিএনপির জন্ম সেনা ছাউনিতে হলেও দীর্ঘ সময় গনতন্ত্র ভোগ করার অভিজ্ঞতা ও রাজনৈতিক কৌশলের ছিটেফোঁটা অর্জনে ব্যর্থ। বিএনপি এখনো বুঝতে পারেননি রাজনীতি পেশীশক্তিতে হয় না। নীতি আদর্শ ও মতবাদের উপর নির্ভর। ক্ষমতা ও সাধারণের পক্ষ অবলম্বনে গড়ে উঠে। কোনো নেতা নির্ভর পেশীশক্তিকে জনগণ সমর্থন করে না।

আমাদের মুক্তিযুদ্ধ একটি আদর্শের উপর অনুষ্ঠিত ও বাস্তবায়ন হয়েছে, মুক্তির বানী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের মোহন বাশীর সুরে। জাতিকে জাগিয়ে তুলতে ২৪ বছর সময় নিতে হয়েছে। স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন হয়েছিলো গনতন্ত্রের আশার আলো দেখাতে পেরেছিলেন বলে।এখানেও ১৫ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। আওয়ামীলীগের ১৪ বছরে বিএনপি একটি জাতীয় ইস্যু সৃষ্টি করতে পারলেন না।অযথা পর নির্ভর রাজনীতি ও বাতিল নেতাদের পেছনে নিজ দলের অর্থ জনবল নিঃশেষ করেই চলেছেন। উপরন্তু নিজেদের ডক্টরেট ও বুদ্ধিজীবীদের করছেন ঘর ছাড়া। সমসের মবিন চৌধুরী, মাহাবুবুর রহমান, ইমাম আহম্মেদ, মোর্শেদ খানরা বিএনপি করতে পারে না। গয়েশ্বর, মির্জা আব্বাস, রিজভীরা পরামর্শ দাতা। জামাত নিরবে অর্থ ও শক্তি সঞ্চয় করছেন ঐক্য জোটে নাই বলে। বিএনপি অযথা, অসময় আন্দোলনে জনসমর্থন হারাচ্ছে। ২০২৪ সালের নির্বাচন প্রতিরোধ করবেন, না অংশগ্রহণ ? উত্তর আমাদের কাছে নাই। তবে মাহামুদুর রহমান মান্না কিন্তু উপদেশ দিয়েই চলেছেন। একলা হবে না, চেষ্টা করে দেখার হুমকি বলতে পারেন।

নুর, গুর, রেজা, সাকী পাখী দের কে নিয়ে সরকার উল্টানো আয়োজন করতে বলেছে । খেলা অনেক হয়েছে, বিএনপি দিনে দিনে ছোটো হলেও সরকার বিরোধী মতবাদ ছোট নয়। আগাছার উপর নির্ভর না করে, অসময় শক্তিহীন না হয়ে, একটি সরকার বিরোধী ইস্যু সৃষ্টি করুন, রাজনীতি করতে চাইলে। ইস্যু ছাড়া রাজনীতি কোনো ডক্টরেট, বুদ্ধিজীবী কাজে লাগাতে পারবে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইস্যু করতে না পারলে একটা লেঙ্গুর ধরার চেষ্টা করুন। যাকে নিয়ে আপনারা রাজনীতি করতে পারেন।

বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনে ইস্যুর অভাব ছিলো না, পাকিস্তান বিরোধী আন্দোলন গড়ে উঠে ছিলো ভাষা আন্দোলন থেকে । বঙ্গবন্ধু হত্যার পরে আওয়ামীলীগ বিরুদ্ধে ইস্যু ছিলো ভারত। সকল ইস্যু শেখ হাসিনা বস্তা বন্দী করেছে উন্নয়ন ও সাধারণ মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে । বিএনপি-জামাত রাজনৈতিক ইস্যু গুলো পেট্রোল বোমা ও আগুনে জ্বালিয়ে নষ্ট করছেন।

লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব ও রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের চলতি দায়িত্ব প্রাপ্ত সভাপতি জনাব রবিউল আলম।

শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর...

Dairy and pen distribution

themesba-lates1749691102