April 23, 2024, 5:31 am
শিরোনামঃ
জনমত পারমাণবিক বোমাকে পরাজিত করে,নির্বাচন সত্যকে উপজেলা নির্বাচন থেকে আওয়ামীলীগের নতুন নেতৃত্ব উঠে আসবে গরু ও মাংস আমদানীর বিতর্কে অংশ নিতে চাইছিলাম না। ধর্ম নিরপেক্ষ ভারত কে বাঁচাতে,বিজেপি বিরোধী ঐক্য চাই তাপমাত্রা কমাতে যেসব পরামর্শ দিলেন চিফ হিট অফিসার বুশরা কৃষক লীগ নেতাদের গণভবনের শাকসবজি উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্দোলনে ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি নিজেরাই মহাবিপদে আছে: ওবায়দুল কাদের শুধু প্রশাসন দিয়ে মাদক ও কিশোর গাং প্রতিরোধ করা সম্ভব নয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে ব্যর্থ হলে ? গুচ্ছভুক্ত ২৪ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা

দুর্গার মহোৎসবের বানী, ধর্মের বিভেদ মিমাংসার জন্য শেখ হাসিনা, মোদি ঐক্য চাই

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : Sunday, October 22, 2023
  • 62 Time View
দূর্গার আগমনে শান্তির বার্তা, ধর্মের বিভেদের ভারত অশান্ত। সংবিধানে ধর্ম নিরপেক্ষ থাকলেও ভারত কে হিন্দু রাষ্ট্রের রূপ ধারনে অতি উৎসাহী মোদি, স্বার্থ শুধু রাজনীতি। খুদ্র রাজনৈতিক স্বার্থের জন্য ভারতীয়দের মাঝে যে ধর্মীয় বিভেদ সৃষ্টি করা হয়েছে, শতজনমে শতবছরে ভারতীরা এই বিভেদ থেকে মুক্তি পাবে না। আমার শিশু ও কিশোর কাল ভারতেই কাটাতে হয়েছে। দূর্গা পুঁজার লাড়ু, মিষ্টর্ন লুচি লাবড়া খাওয়ার স্বাদ এখনো ভুলতে পারছি না। ধর্মীয় সম্প্রিতির দেশ ভারত নিয়ে গর্ভিত ছিলো বিশ্ব।পয়ত্রিশ কোটি মুসলমান বুকে ধারন করেছে ভারত। বিজেপির মানবতা বিরোধী ধর্মীয় আচরণের মানবাধিকার ছিন্নভিন্ন করে দিয়েছে ভারত কে।
যেটুকু বাকী ছিলো, ইসরায়েল পক্ষে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নিরপেক্ষতা হারিয়েছে। দেবীদূর্গার শান্তির বার্তা, মানবজাতির জন্য মানবিকতা মানবাধিকারের শেষ পেরেক ঠুকে দিয়েছে মোদি জী। বাংলাদেশে একটা সংবিধান আছে, সেই সংবিধানে ধর্ম নিরপেক্ষতার সাথে, ইসলাম যুক্ত আছে। ধর্মীয় রীতিনীতি কোনো বাঁধা নেই। জাতি ধর্ম কে ভাগ করা হয় নাই। সরকারী অর্থে, প্রতিবেশীর সহায়তায় পূজার পরিপুর্ণতা খুঁজে পাই। গতকাল আলহাজ্ব মোঃ সাদেক খান এমপির সাথে পূজামন্ডব পরিদর্শন করেছি, হিন্দু মুসলিম চিহ্নিত করতে পারিনি। রায়ের বাজার মসজিদ মন্দির একই স্থানে, রাস্তার এপার ওপার। আমার ৬১ বছর বসবাস, কখনো সংঘর্ষ দেখিনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাঙালি জাতি পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্য মানব সেবার দিক্ষা পেয়েছি, মানবকে ভাগ করা শিখিনি। নামাজের সময় পূজোর মাইক বন্ধ থাকে।
পূজোর আরাধনার সময় মুসল্লীদের সহায়তা, রায়ের বাজারের ঐতিহ্য। ভারতের বিজেপি সরকার কে এই সংবাদ দেওয়ার নেওয়ার কেউ আছে বলে আমার মনে হয় না। শেখ হাসিনার সাথে হাত মিলিয়ে, শেখ হাসিনার কাছ থেকে কিছুই শিখতে পারলেন না মোদিজী। মোদি হাসিনার এক মন, এক আত্না এশিয়ার শান্তির বার্তা দিতে পারে। পাকিস্তান, ভারতের আচরণ অশান্তি বহন করে। দূর্গোর আগমন হয় প্রতিবছর, বিশ্ব পরিমন্ডল থেকে যুদ্ধ কে বিতারিত করতে পারছি না। ইসরায়েল কে সমর্থন দিয়ে দেবীদূর্গ কে অসম্মান করা হয়েছে বলে আমার বিশ্বাস।মানবতার,মানবিকতার সবকটা পেরেক ঠুকে দিয়েছেন মোদি। দেবীর বিদায়ে, মোদির শুভবুদ্ধি আশা করি।
লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব, রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের চলতি দায়িত্ব প্রাপ্ত সভাপতি ও খাস খবর বাংলাদেশ পত্রিকার সম্মানিত উপদেষ্টা মন্ডলী জনাব রবিউল আলম।
শেয়ার করুন
More News Of This Category

Dairy and pen distribution

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি ডটকম
themesba-lates1749691102