May 24, 2024, 11:28 pm
শিরোনামঃ
শৈলকুপার এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা এমন যদি হতোঃ কবি মোঃ খোকন খান ইন্টারন্যাশনাল আইকনিক এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডে মনোনীত ডেইজী সারোয়ার জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফোরামের কমিটি গঠন সাংবাদিককে হেনস্থাকারী ছাত্রলীগ নেতার বিচার চায় বিডিজেএ ঘটনার সময় বাংলাদেশে ছিলাম, আমাকে ফাঁসানো হয়েছে : আক্তারুজ্জামান শাহীন বাবাকে নিয়ে এমপি আনারের মেয়ে ডরিন আবেগঘন স্ট্যাটাস বাবার হত্যার বিচারে চাইলেন মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন মৎস্যজীবী লীগের ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিখোঁজ ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমের ‘লাশ’ কলকাতা থেকে উদ্ধার

তসলিমা নিজের প্রয়োজনে, পরিমনি টাকার প্রয়োজনে সজ্যাসঙ্গি হয়েছেন, নারী সঙ্গ গ্রহন করেন নাই কে ?

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : Friday, September 3, 2021
  • 223 Time View
জনাব রবিউল আলমঃ
তসলিমা নাসরিনের নিরমোহ স্বীকারোক্তি, আমি যাদের সঙ্গ দিয়েছি, তাদের কাছ থেকে টাকা নিইনি। তাদের পেছনে টাকা খরচ করেছি। নারী পুরুষের সঙ্গ ছাড়া এই পৃথিবী অচল। প্রশ্ন হচ্ছে বৈধ অবৈধের। মৌলবাদের উত্থান তসলিমা নাসরিনের উপর ভর করে বাংলাদেশে উকি মেরে ছিলো।গটফাদার মামুনল হকদের সঙ্গ দিলে অনেক ব্যক্ষা আছে ইসলামে। পরিমনিরা হয়তো টাকার প্রয়োজনে জীবনদান করেছেন, অপরাধ জগতে জরিয়েছেন। প্রচলিত আইনে বিচার হলে,কারো বলার কিছু ছিলোনা। অতিরিক্ত শক্তি প্রদর্শন জনমনে প্রশ্ন উদয় হয়েছে।প্রতিহিংসা পরিলক্ষিত হওয়াতে জনমত পরিমনির পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। মহামান্য আদালত আইনের ব্যক্ষা চেয়েছেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও দ্বিতীয় তিত্বীয় দফা রিমান্ড দাতাকে জবাবদিহিতা করতে বলেছেন। তসলিমা নাসরিন আইনের সহায়তা চেয়েছেন না পেয়েছেন, আমার জানা নাই। তবে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়েছেন, আমি হলফ করে বলতে পারি। যারা তসলিমা নাসরিন ও পরিমনির অপরাধের বিচার না চেয়ে প্রতিহিংসা চরিত্রার্থ করেছেন।তাদের কাছে প্রশ্ন, কোথায় পৌচিয়ে দিলেন ? জনপ্রিয়তার শীর্ষে। ব্যাক্তি পরিমনির অপরাধের হিসাব এখন জনতার কাছে নাই: অতিরিক্ত অত্যাচার ও অপপ্রচারের জন্য। লেখক, সাহিত্যিক বুদ্ধিজীবীদের কাছে বাঙালি সংস্কৃতির প্রশ্ন জরিয়ে ছিলো। বহিঃবিশ্বে বাংলা সাহিত্য সংস্কৃতিকে কলংকৃত করা হয়ে তসলিমা-পরিকে নিয়ে, যা কারো কাম্য ছিলো না। প্রতিহিংসার মহানায়কদের কী হবে, জানিনা। তবে আইনের অপপ্রয়োগ হয়ে থাকলে, যারা অপপ্রয়োগের জন্য দায়ী, তাঁদেরকে জবাবদিহি করতেই হবে। জনগণের বিচারের রায় দিয়ে দিয়েছেন। আদালতের বিচার চলছে।ইতিমধ্যে নিম্ম আদালতের অনেক বিচারক ভুল স্বীকার করে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা অনেকেই ক্ষমা চেয়ে আবেদন করেছেন। ভুলের জন্য ভুক্তভোগীদের কী ক্ষতিপুরণ হয়েছে ? পরিমনির বেলায় কী বলা হয়,জানিনা। পরিমনির হাস্যজ্জল ছবি, আমাদেরকে আমাদের সমাজকে লজ্জিত করছে না ? তসলিমা নাসরিনের সত্য স্বীকারোক্তি এই সমাজের অনেকের কাছে বিব্রত হতে পারে, আমি তাকে শ্রদ্ধা করি। কয়জন তসলিমা নাসরিন হতে পারে। কয়জন পরিমনি হতে পারে আমাদের প্রতিহিংসার মুখোশ উম্মুচন করতে।
লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব ও রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব রবিউল আলম।
শেয়ার করুন
More News Of This Category

Dairy and pen distribution

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি ডটকম
themesba-lates1749691102