বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:২৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
জন্মদিনে নানা শ্রেণির মানুষের ভালো বাসায় সিক্ত আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ রুস্তুম আলী জন্মদিনে শুভেচ্ছায় সিক্ত যুবলীগের নেতা মোঃ আলমগীর হোসেন ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে আগুনে পুড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু শীতার্ত মানুষের ঘরে ঘরে কম্বল পৌঁছে দিচ্ছেন ঝাল মুড়ি বিক্রেতা মোহাম্মদ জাবেদ ইসলাম পর্ব ৫৮: “যে ইতিহাসটি বলা দরকার” : এডভোকেট খোন্দকার সামসুল হক রেজা বাঙ্গালীর মাতৃভাষা আন্দোলন সংস্কৃতি রক্ষা স্বাধীকার স্বাধীনতা ও বর্তমান উন্নয়ন প্রেক্ষাপট সন্ত্রাসী সংগঠন হুজিবি প্রধানসহ গ্রেফতার ৬; বড় হামলার পরিকল্পনা ছিল, বলছে সিটিটিসি গ্যাসে ভাসছে ভোলা, কঠিন হচ্ছে তোলা কর্ণেল (অব) শওকত আলীর ৮৬তম জন্মবার্ষিকীতে আবু সাঈদ তালুকদারের বিনম্র শ্রদ্ধা মিলেমিশে এ জীবনঃ কবি মোঃ নাসির উদ্দিন দুলাল

ঝিনাইদহে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ভাইকে খুন

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১০৪ দেখা হয়েছে

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহে জমিজমা সংক্রান্তের বিরোধের জের ধরে চাচাতো ভাইয়ের লাঠির আঘাতে হারুন খা নামের এক যুবক নিহত হয়েছে। সে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ১৪ নং ঘোড়শাল ইউনিয়নের কুশাবাড়িয়া গ্রামের মৃত জলিল খার ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, সদর উপজেলার কুশাবাড়িয়ায় গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা নিয়ে চাচাতো ভাই আকমলের সঙ্গে হারুনের বিরোধ চলে আসছিল।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ রোজ রবিবার বিকেলে চাচাতো ভাই আকমল কবরস্থানে ফলজ বনজ গাছের চারা রোপণ করছিলেন। ওই সময় হারুন খাঁ বাধা দিলে দুইজনের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে চাচাতো ভাই আকমল খা হারুনকে বাশের লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে।

আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফরিদপুর মেডিকেলে রেফার্ড করে। সেখানে থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সোমবার বিকেলে মারা যায়। মঙ্গলবার দুপুরে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়।

নিহতের স্ত্রী আকলিমা খাতুন অভিযোগ করে বলেন, আমার স্বামীকে আহত অবস্থায় সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তার উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে চিকিৎসক। সে সময় সামাজিক প্রতিপক্ষ নান্নু মন্ডল, সাহেব আলী ও আমিরুল ইসলাম ছাড়পত্রের কাগজ আটকে রেখে আমার স্বামীকে ১২ ঘন্টা চিকিৎসা নিতে দেয়নি। এমনকি আমাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যেতে দেওয়া হয়নি। এ কারণে আমার স্বামীর সময়মত চিকিৎসা না হওয়ায় তিনি মারা যান।

হত্যার ঘটনায় নিহত হারুন খাঁর স্ত্রী আকলিমা খাতুন বাদি হয়ে আকমল হোসেনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, ঘটনার সাথে জড়িত চাচাতো ভাই আকমল হোসেনকে আটক করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর...

Dairy and pen distribution

themesba-lates1749691102