June 17, 2024, 8:03 pm
শিরোনামঃ
ত্যাগের মহিমায় রাজধানীতে মহল্লায় মহল্লায় চলছে পশু কোরবানি রাজধানীতে মহল্লায় মহল্লায় চলছে পশু কোরবানি পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অ্যাডভোকেট শেখ জামাল হোসেন মুন্না পবিত্র ঈদ-উল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আলহাজ্ব মোঃ রেজাউল করিম সেন্টমার্টিন পরিদর্শনে পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৎপর থাকার নির্দেশ:  বিজিবি মহাপরিচালক   ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনারকে হত্যার আগে ২৫ বার বৈঠক করেন শাহীন বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন এবং পুরস্কার বিতরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোঃ জাফর ইকবাল (বাবুল) পবিত্র ঈদ-উল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোঃ সাইফ ইসলাম শুভ পবিত্র ঈদ-উল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোঃ ইব্রাহিম খান তুষার

ক্ষমতার দ্বন্দ্ব, দ্বন্দ্বের ক্ষমতায় দেশ জাতি ও কর্মীরা কিছুই পায় না,হারাতে হয় অমুল্য সম্পদ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : Sunday, January 9, 2022
  • 178 Time View
জনাব রবিউল আলমঃ
নারায়নগঞ্জের সিটি নির্বাচন ১৬ জানুয়ারী শেষ হয়ে যাবে, জয় পরাজয়ের হিসাব নিকাশ হবে। চুনখা-উসমান পরিবারের দ্বন্দ্ব চির অম্লান হয়েই থাকবে। গনতন্ত্রের এই সুন্দয্য বাংলাদেশের রাজনীতিতে একমাত্র নারায়ণগঞ্জ আমাদেরকে উপহার দিতে পারে এবং পেরেছে। সাথে যুক্ত হয়ছে তৈয়মুর আলম খন্দকার। বিএনপির বহিষ্কার, নির্বাচন কমিশনারের ভোট যুদ্ধ, ভোটার নাই উক্তি কে উপেক্ষা করে তৈয়মুর গনতন্ত্রের যে ইতিহাস সৃষ্টি করছেনঃতার জন্য একটা স্যালুট পাওনা থাকবেন। গনতন্ত্রের লাগাম নাই, লাগাম টানার ইচ্ছেও, নেতাদের আছে বলে আমার মনে হয় নাই।থাকলে একদিনের ব্যবদানে বড় ভাই গডফাদার হয়ে গেলো। নারায়নগঞ্জের দুই পরিবারের দ্বন্দ্ব ও রাজনৈতিক প্রতিযোগীতায় আওয়ামীলীগ কে সংগঠিত করেছে, নিঃসন্দেহে। উসমান পরিবারহীন রাজনীতির জন্য অনেক মাসুলও দিতে হয়েছে, যে হিসাব জাতির সামনে : লেখার প্রয়োজন নাই। নৌকার বিপক্ষে উসমান পরিবার, এই কথা বিশ্বাস করারও প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না। ক্ষমতার দ্বন্দ্ব আছে, থাকবে রাজনৈতিক প্রতিযোগীতা। মানঅভিমান ভাঙতে না পারেন, লাগামহীন কথা বলার প্রয়োজন আছে কি ? যারা নারায়নগঞ্জের আওয়ামীলীগ প্রার্থীর পক্ষে দায়ীত্ব নিয়ে মাঠে আছেন, তাদের দায়ীত্ব কি ? আমার কাছে পরিস্কার নয়। তারা কি ইতিমধ্যে বিশ্বাস করতে শুরু করেছেন সামিম উসমানে প্রার্থী তৈয়মুর আলম খন্দকার ? না-কি সামিম উসমানকে ঘারদরে আওয়ামিলীগ থেকে বের করে দেওয়ার জন্য দায়ীত্ব পালন করছেন ? আইভির ভাষাকে সংযোত করুন, দলিয় ঐক্য প্রতিষ্ঠা করুন। নৌকার জয় কেউ প্রতিরোধ করতে পারবে না। ১৬ জানুয়ারীর জয় রাজনীতির জন্য শেষ কথা নয়। শেষ কথা হবে না নারায়নগঞ্জের জন্য। সক্ষমতার দ্বন্দ্ব, দ্বন্দ্বের ক্ষমতায় দেশ জাতি ও নেতা কর্মীদের কিছুই দিতে পারবে না। উপরন্তু হারাতে হয় এবং হয়েছে রাজনীতির অমুল্য সম্পদ একনিষ্ঠ নেতা কর্মীদের কে। আপনারা যারা নারায়নগঞ্জের সিটি নির্বাচনের আইভির দায়ীত্ব নিয়েছেন, তারা কিন্তু জবাবদিহিতার উর্ধ্বে নয়। প্রমান করতে হবে, আপনারা অসাধ্য সাধন করেছেন। দীর্ঘকালের চুনখা-উসমান পরিবারের মিলন ঘটিয়ে। আমি বিশ্বাস করি আপনাদের সেই যোগ্যতা আছে বলেই আমার নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপনাদেরকে এই গুরুদায়িত্ব অর্পণ করেছেন। আর কিছু না পারলেও ১৬ জানুয়ারী পর্যন্ত আইভির মুখে লাগাম দেওয়ার দায়ীত্ব আপনাদের পালন করতে হবে।
লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব ও রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব রবিউল আলম।
শেয়ার করুন
More News Of This Category

Dairy and pen distribution

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি ডটকম
themesba-lates1749691102