শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
মির্জা ফখরুল ও আব্বাসকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ বিএনপিকে গোলাপবাগ মাঠে সমাবেশের অনুমতি দিলো পুলিশ গুরুতর অসুস্থ মোঃ মনিরুজ্জামানের জন্য সকলের নিকট দোয়া চেয়েছেন, লিটন মাস্টার ডিসেম্বর বাঙালি জাতির বিজয়ের মাস, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান আপন ঠিকানা মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে পছন্দের শীর্ষে শারমিন সরকার আগামীকাল থেকেই দেশের সব জায়গায় নেতাকর্মীদের পাহারায় থাকতে বললেন : ওবায়দুল কাদের কাউখালীতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতার মুখ থেঁতলে দিল সন্ত্রাসীরা বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে নতুন ষড়যন্ত্রঃ আব্দুর রহমান শাহ্ ১৯৬৯ সালের ৫ ডিসেম্বর ‘বাংলাদেশ’ নামকরণ করেছিলেন বঙ্গবন্ধু: আবু সাঈদ তালুকদার ঢাকা মহানগর উত্তর কৃষক লীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক হলেন আব্দুস সালাম জয়

কুষ্টিয়ায় মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ, মাদ্রাসা সুপার গ্রেপ্তার

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ১২৩ দেখা হয়েছে

কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়ার মিরপুরে ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রসার সুপার মাওলানা আব্দুল কাদেরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ৫ অক্টোবর ২০২০ রোজ সোমবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার পোড়াদহ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে রোববার উপজেলার পোড়াদহ ইউনিয়নের স্বরুপদহ চকপাড়া এলাকার সিরাজুল উলুম মরিয়ম নেসা মাদ্রাসায় এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগ ওই শিক্ষার্থীকে রোববার ফজরের নামাজের আগে এবং একই দিন রাতে দুদফা ধর্ষণ করেন মাদ্রাসা সুপার। পরে ঘটনা জানাজানি হলে গাঢাকা দেন কাদের। পরে পুলিশ ওই শিক্ষার্থীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠায়। এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী সোমবার মাদ্রাসা ঘেরাও ও ভাঙচুর করেছে।

পুলিশ জানায়, নির্যাতিতা ওই মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্রী। সপ্তাহের ৬ দিন সে ওই মাদ্রাসায় থাকতো। প্রতি শুক্রবার সকালে তার বাবা তাকে বাড়ি নিয়ে যেত, আবার শনিবার সকালে পৌঁছে দিত মাদ্রাসায়। গত শনিবার সকালে মেয়েটির বাবা তাকে মাদ্রাসায় পৌঁছে দেন। পরে ভোর রাতে ফজরের নামাজের সময় মাদ্রাসার সুপার মাওলানা আব্দুল কাদের মেয়েটিকে নিজ কক্ষে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। রাত ৮টার দিকে মেয়েটিকে নিজ কক্ষে ডেকে দ্বিতীয় দফা ধর্ষণ করেন তিনি। সুপার বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য মেয়েটিকে শাসিয়েও দেন। তবে মেয়েটি সোমবার সকালে তার এক সহপাঠিকে বিষয়টি জানায়। আর ওই সহপাঠি ঘটনাটি নিজের বাবাকে জানালে তা এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়। পরে বিক্ষুব্ধ জনতা মাদ্রাসায় হামলা চালায়। তারা ভাঙচুরও করে ওই মাদ্রাসায়।

মেয়েটির বাবা এ ঘটনায় আব্দুল কাদেরের বিরুদ্ধে সোমবার মিরপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মিরপুর থানার ওসি আবুল কালাম বলেন. মেয়েটির বাবার মামলার ভিত্তিতে তারা ভিকটিমকে উদ্ধার করে শারীরিক পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। রাতেই অভিযুক্ত মাদ্রাসা সুপারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর...

Dairy and pen distribution

themesba-lates1749691102